/ডায়াবেটিস প্রতিরোধে প্রয়োজন যথাযথ সচেতনতা

ডায়াবেটিস প্রতিরোধে প্রয়োজন যথাযথ সচেতনতা

বর্তমানে সারা বিশ্বজুড়েই দিন দিন ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা বেড়ে চলেছে। ডায়াবেটিসের প্রকোপ বাড়ার সাথে সাথে ডায়াবেটিসজনিত জটিলতাগুলোও বাড়ছে। তবে যথাযথ প্রতিরোধ ব্যবস্থা গ্রহণ করলে এই ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা কমানো সম্ভব। স্থূলকায়, যাদের পরিবারের সদস্যদের ডায়াবেটিস আছে, গর্ভাবস্থায় যাদের ডায়াবেটিস থাকে তাদের ভবিষ্যৎ জীবনে ডায়াবেটিস হবার ঝুঁকি বেশি থাকে।
আমেরিকান ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশনের মতে, ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করা সম্ভব। শারীরিক পরিশ্রম ও ব্যায়াম, সঠিক খাদ্য নির্বাচন, প্রচুর আঁশযুক্ত খাবার গ্রহণ, শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণ করলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। সঠিক খাদ্যের মধ্যে রয়েছে- কার্বোহাইড্রেট পরিমিত পরিমাণে খাওয়া, সফট ড্রিংকস পরিহার করা, প্রোটিন সমৃদ্ধ খাদ্য গ্রহণ, তেল চর্বিযুক্ত খাবার পরিহার করা। এছাড়া পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম ও মানসিক চাপমুক্ত থাকতে হবে।
সমীক্ষায় দেখা গেছে, প্রতি এক কেজি ওজন হ্রাসে ডায়াবেটিস হবার সম্ভাবনা ১৬ শতাংশ কমে যায়। তাই নিয়মিত ব্যায়াম ও হাঁটার মাধ্যমেও ডায়াবেটিস হবার ঝুঁকি কমানো সম্ভব। ডায়াবেটিস প্রতিরোধ এখন একটি বড় চ্যালেঞ্জ। তাই ব্যক্তি পর্যায় থেকে শুরু করে সমাজের প্রতিটি স্তরে ডায়াবেটিস প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধি প্রয়োজন।
লেখক: ত্বক, লেজার এন্ড এসথেটিক বিশেষজ্ঞ
খবরটি সবার সাথে শেয়ার করুন !