তিন জেলায় ত্রাণ বিতরণ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ ও সৈয়দপুর, ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ এবং নওগাঁর রাণীনগরে গতকাল বৃহস্পতিবার বন্যার্তদের মধ্যে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জের পুঁটিমারী ইউনিয়নের কিসামত ধাইজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে ও ভেরভেরি ঈদগাঁও মাঠে ৪০০ পরিবারকে ৪০০ টাকা করে দিয়েছে নীলসাগর গ্রুপ। বন্যার্তদের হাতে টাকা তুলে দেন গ্রুপের পরিচালক মো. মমিনুর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন গ্রুপের পরিচালক আবদুল আজিজ, ব্যবস্থাপক (পোলট্রি) আওরঙ্গজেব, প্রকল্প ব্যবস্থাপক মাসুম প্রধান, গ্রুপের কনজ্যুমার বিভাগের প্রধান রহমত আলী প্রমুখ। এর আগে প্রতিষ্ঠানটি ডিমলা ও জলঢাকা উপজেলায় বন্যার্তদের মধ্যে টাকা ও শুকনো খাবার বিতরণ করে।

সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদ গতকাল ত্রাণ বিতরণ করেছে। জেলা প্রশাসক মোহম্মদ খালিদ রহীম দুপুরে শহরের কয়ানিজপাড়ায় শেখ লুৎফর রহমান কিন্ডার গার্টেন আশ্রয়কেন্দ্রে ১৫০ জন বন্যার্তের মধ্যে তৈরি খাবার বিতরণ করেন। এ ছাড়া উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে ১ হাজার পরিবারের মধ্যে চাল, ডাল, লবণ, চিনি, তেল, মোমবাতি, দেশলাই, চিড়া ও মুড়ি বিতরণ করা হয়। এ সময় সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মোখছেদুল মোমিন, ইউএনও বজলুর রশীদ, পৌর কাউন্সিলর এরশাদ হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া উপজেলার বন্যাকবলিত ১ হাজার পরিবারের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করেছে সৈয়দপুর পৌরসভা। সৈয়দপুর পৌর পরিষদ শহরের বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থানরত এবং বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ওই সব পরিবারের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। এ সময় পৌরসভার মেয়র মো. আমজাদ হোসেন সরকার উপস্থিত ছিলেন