/বাংলাদেশের সেরা সুযোগ!

বাংলাদেশের সেরা সুযোগ!

২০০৭ সালে বাংলাদেশ দল এই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ‘জয়’ পেয়েছিল নিরপেক্ষ ভেন্যুতে। দুঃখের বিষয় হলো, বিশ্বকাপের আগে আগে সেই ম্যাচটার ওয়ানডে স্বীকৃতি মেলেনি। এরপর নিউজিল্যান্ডকে বাংলাদেশ দু দুবার হোয়াইট ওয়াশ করেছে। কিন্তু নিরপেক্ষ ভেন্যুতে এই দলটির বিপক্ষে আর খেলাই হয়নি।

ফলে সেই জয়টা রেকর্ডে না থাকার আফসোস থেকেই গেছে। আজ সেই আফসোস মিটিয়ে ফেলার দারুণ একটা সুযোগ মাশরাফিদের সামনে। আয়ারল্যান্ডে চলমান ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টে আজ নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে নতুন একটা অধ্যায় শুরু করার সুযোগ।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অভিজ্ঞতা তো একেবারেই ভালো নয়।

ভারত ও শ্রীলঙ্কা সফরের আগে এই দেশটিতে বাংলাদেশ পূর্ণাঙ্গ সফর করে এসেছে। সেখানে তিন ফরম্যাটেই হোয়াইট ওয়াশ হয়ে এসেছে বাংলাদেশ দল। ফলে সেদিক থেকে অনুপ্রেরণা নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। বিপরীতে আবার এই দলটির বিপক্ষে দেশের মাটিতে বাংলাদেশের রেকর্ড গত কয়েক বছরে ঈর্ষণীয়। দেশের মাটিতে এই দলটিকে বাংলাদেশ সর্বশেষ টানা ৭ ম্যাচেই হারিয়েছে। কিন্তু খেলাটা যখন নিরপেক্ষ ভেন্যুতে, তখন আবার ইতিহাসটা নিউজিল্যান্ডের পক্ষে। এ যাবত্ দু দল নিরপেক্ষ ভেন্যুতে যে ৫টি ম্যাচ হয়েছে, সবগুলোতে জয়ী দল নিউজিল্যান্ড।

তবে বাংলাদেশের এবার ইতিহাস বদলানোর সুযোগ নিউজিল্যান্ডের সেরা খেলোয়াড়দের অনুপস্থিতির কারণে।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে ব্যস্ত থাকার কারণেই দলের সেরা ক্রিকেটারদের ত্রিদেশীয় সিরিজে পাচ্ছে না নিউজিল্যান্ড। নিয়মিত অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন খেলছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদে।

আইপিএলের কারণে তারা পাচ্ছে না হার্ডহিটার মার্টিন গাপটিল, বাঁ-হাতি পেসার ট্রেন্ট বোল্ট, ব্যাটিং অলরাউন্ডার কোরি অ্যান্ডারসন এবং অ্যাডাম মিলনেকে। তবে এই ম্যাচে মিলনেকে না পাওয়া গেলেও, পরের ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে নামছেন তিনি। আইপিএল থেকে পরের সপ্তাহেই আয়ারল্যান্ডে পৌঁছানোর কথা তার।

অন্যদিকে বাংলাদেশ নামবে তাদের সেরা দল নিয়ে।

নিউজিল্যান্ড দল মনে করছে, বাংলাদেশের বিপক্ষে তাদের তুরুপের তাশ হবে স্পিনাররা! ম্যাচে শুরুতে টম লাথাম-রস টেইলর-লুক রঞ্চিদের ব্যাটে দ্রুত রান তোলার পরিকল্পনা করছেন কোচ মাইক হেসন। একইভাবে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ ধসাতে চান স্পিনারদের সাহায্যে, ‘আমাদের এমন কিছু বোলার আছে যারা প্রথম ১০ ওভারে দ্রুত উইকেট তুলে নিতে পারবে। আমরা আসলে খানিকটা বৃত্তের বাইরে থেকে চিন্তা করছি। দলে এমন কিছু ক্রিকেটার আছে যারা বেশ বিধ্বংসী। উইকেটে সুইং না থাকলেও তারা দ্রুত উইকেট নেওয়ার যোগ্যতা রাখে।’

একই কৌশল চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেও ধরে রাখতে চায় নিউজিল্যান্ড। কিন্তু ইংল্যান্ডের পাটা উইকেট হলেও সেখানে খুব একটা টার্ন পাবে না বোলাররা—দাবি করেছেন হেসন। তিনি বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে ইংল্যান্ডের মাটিতে সাদা বল খুব একটা সুইং করছে না। সেখানে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির মতো টুর্নামেন্টে প্রথম ১০ ওভারে দ্রুত উইকেট নেওয়াটা জরুরি হলেও, এমন উইকেটে সেটা করা কঠিন।’

এদিকে এই ম্যাচ দিয়ে আজ ফিরছেন মাশরাফি। ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) নিষেধাজ্ঞার কারণে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে মাঠে নামা হয়নি বাংলাদেশ দলের নিয়মিত ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার। বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হওয়া সেই ম্যাচে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সহ-অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। সমর্থকদের জন্য সুখবর, নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে বুধবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ফিরছেন মাশরাফি।

গত ১ এপ্রিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ ওয়ানডেতে স্লো ওভার রেটের কারণে এক ম্যাচ নিষিদ্ধ করা হয় অধিনায়ক মাশরাফিকে। আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী, ১২ মাসের মধ্যে এই অপরাধ করলে অধিনায়ককে এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়তে হবে।

খবরটি সবার সাথে শেয়ার করুন !