‘ব্যক্তিত্বেই’ অপরূপা শেখ হাসিনা

একেবারেই সাধারণ একজন বাঙালি নারী। তার ব্যক্তিত্বটা যেমন সাধারণ, চলাফেরা, কথাবার্তা, বক্তব্যের মাঝখানে বিভিন্ন সুন্দর উপমার ব্যবহারগুলো যেমন সাধারণ আর নিতান্তই বাঙালি ঢঙে, পোশাক আর সাজসজ্জাতেও তিনি তেমন পুরোদস্তুর সাধারণ বাঙালি। তিনি আমাদের বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বর্তমানে ক্ষমতায় থাকা বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘমেয়াদি এবং ক্ষমতার শীর্ষে থাকা নারী নেত্রী। তার গুণ, মহিমায় শাশ্বত হয়েই তিনি যাবতীয় জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠেছেন ইতিমধ্যে। ক্ষমতায় আসীন হওয়া, ক্ষমতা ধরে রাখা এবং জনগণের সার্বিক মঙ্গলের যাবতীয় দায়িত্ব তাঁর কাধে। পরিশ্রম করছেন, নিজের কাজ নিজেই সামলাচ্ছেন। বয়সের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে তাঁর ব্যস্ততা। অসুখ বিসুখকে পাশ কাটিয়ে আজও তিনি একেবারে ফিট।

অন্য বিশ্বনেত্রীদের দিকে একবার তাকাই আমরা। ইন্দিরা গান্ধী ভারতের রাজনৈতিক ইতিহাসে অমোচনীয় একটি নাম। আজ থেকে অনেকগুলো বছর আগেও তিনি ছিলেন সেই সময়ের একজন ফ্যাশন আইকন। তার সাজসজ্জা, পোশাক, বিশেষ করে তার সাদাকালো চুলের স্টাইল এবং ছিল একেবারে আলাদা এবং অনুকরণীয়। এবং এখনো তিনি সবার থেকে আলাদা।

কেবল রাজনীতি আর আন্তর্জাতিক কূটনীতিতেই সব সময় ব্যয় করেননি ‘লৌহমানবী’ মার্গারেট থ্যাচার। মাথার আকর্ষণীয় কেশরাজির জন্যও যথেষ্ট পরিশ্রম করেছেন তিনি। ব্যাপক যত্নের কারণেই তাঁর চুল হয়ে উঠেছিল ও রকম আকর্ষণীয়। জার্মানির বর্তমান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেল। ফ্যাশন দুনিয়াতেও তার বাহারও কম নয়। তার আধুনিক পোশাক, হালকা সাজ আর চুলের কাটিং এ তিনি বেশ আদুরে হয়ে থাকেন।

ব্রিটেনের টেরিজা মে’ও তার পোশাক, কিছুটা গর্জিয়াস গয়না, চুল, মেকাপ নিয়ে বেশ পরিপাটি ফ্যাশনেবল হয়ে থাকেন। অং সান সুচির পোশাক, ফ্যাশন আর ফুলও অন্য নেত্রীদের তুলনায় ভিন্ন।

সবার চেয়ে ক্ষমতায় এগিয়ে থাকা আমাদের নেত্রী কেন যেন সবার থেকে কিছুটা ভিন্ন। তিনি ফ্যাশন বা যুগের চলন-বলন নিয়ে ততোটা চিন্তিত নন। তিনি এমনিতেই একজন আইডল। তিনি যা, তাতেই তিনি অনবদ্য। তার সাধারণ বাঙালি শাড়ি, খুব সাধারণ কিছু গয়নাই তাকে অনবদ্য করে তুলেছে।

সাধারণ বাঙালি তাঁত, জামদানি, কাতান, সিল্ক শাড়ি বাঙালি গড়নে পরিহিত আমাদের প্রধানমন্ত্রীর পরিচিতি অন্যদের মতো না। তিনি সচরাচর ভিন্ন কোনো স্টাইল মানেন না, তিনি এমনই সাধারণ। বিভিন্ন উৎসব বা দিবস মাথায় রেখে তিনি বিভিন্ন রং বা ধরনের শাড়ি বেছে নেন। হাতে সবসময়ে একটি ঘড়ি, আরেক হাতে চুড়ি, গলায় কখনোবা মুক্তার মালা, কানে খুব ছোট একজোড়া দুল, শাড়িতে বিভিন্ন ধরনের পিন (মাঝেমাঝে সেই পিন থাকে নৌকার আদলে)- এই বেশেই আমাদের প্রধানমন্ত্রী, তিনি ভাস্বর, তিনি অতুলনীয়।

তাকে তার যোগ্যতা, আত্মবিশ্বাস, সাহস, উদ্দীপনা, যুগান্তকারী সিদ্ধান্তগুলোই সবার থেকে উঁচুতে নিয়ে গেছেন। ফ্যাশনে নয়, তিনি ব্যক্তিত্বে সবার অনুকরণীয়। তিনি যা বলেন, যা করেন, যে পথে চলেন, সেটাই আমাদের গোটা জাতিকে পথ দেখাচ্ছে বছরের পর বছর ধরে। দেশের একমাত্র অভিভাবক তিনি, নিজের হাতে নিজের সবকিছু দেখাশোনা, নিজেকে টিপটপ রাখা, দেশের জন্য সর্বাত্মক চিন্তাই আমাদের কাছে অনুকরণীয় আদর্শ। সবকিছুর ঊর্ধ্বে তিনি দেশরত্ন। সারাবিশ্বের কাছে তিনি অনিন্দ্য রোলমডেলে পরিণত হয়েছেন এই সাদামাটা, মার্জিত, পরিপাটি বেশ-বসনে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap