ভালোবাসা দিবসে সিঙ্গেলরা যা করতে পারেন

১৪ই ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। এই দিনটির জন্য সারাবছর অপেক্ষা করে থাকে বিশ্বের হাজার হাজার প্রেমিক-প্রেমিকা। দিনটিকে কেন্দ্র করে ভালোবাসার মানুষটিকে নিয়ে নানা পরিকল্পনা করছেন অনেকে। দিবসটি উপলক্ষে এখন থেকেই  উপহার দেওয়ার বিষয় তো রয়েছেই, দিনটিকে কিভাবে স্মরণীয় করে রাখা যায় তা নিয়েও ভাবনা চিন্তা চলছে।

কিন্তু সবার ভাগ্যে কি আর প্রেমের শিকে ছেঁড়ে! তাই অনিচ্ছাসত্বেও অনেককেই একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত থেকে যেতে হয় প্রেমিক-প্রেমিকাহীন। তাই ভালোবাসার এ বিশেষ দিনটিতে এরকম অনেককেই হা-হুতাশ করতে দেখা যায়। তবে এত মন খারাপ করে থাকার কিছু নেই। ভালোবাসার বিশেষ কেউ নেই তো কি হয়েছে? সিঙ্গেলরাও ভালোবাসা দিবসটিকে জমিয়ে উপভোগ করতে পারেন।

এবার জেনে নেওয়া যাক ভ্যালেন্টাইনস ডে তে সিঙ্গেলরা যেভাবে সুন্দর সময় কাটাতে পারেন –

১. ঘুমের বিকল্প আর কি হতে পারে! সিঙ্গেলরা যারা ঘুমোতে পছন্দ করেন, তারা জমিয়ে লম্বা একটা ঘুম দিতে পারেন এ বিশেষ দিনটিতে।

২. বন্ধু বা বান্ধবীদের কেউ প্রেমিক-প্রেমিকা নিয়ে ঘুরছে, আর একটু পর পর ফেসবুকে ছবি আপলোড করছে, তাদের দেখে হতাশ হওয়ার কিছু নেই। আপনিও বেরিয়ে পড়ুন না সিঙ্গেল কোন বন্ধু বা বান্ধবীকে নিয়ে। এতে দু’জনেরই ভালো সময় কাটবে।

৩. নিজের জীবনে যা কিছু ভালো কাজ করেছেন সেসব নিয়ে ভাবতে পারেন কিংবা নতুন করে কিছু করার পরিকল্পনা করতে পারেন।

৪. সিঙ্গেল বন্ধুদের নিয়ে ডিনারের আয়োজন করতে পারেন।

৫. প্রায়ই ভাবছেন, কিন্তু করা হয়ে উঠছে না, নিজের পছন্দের এমন কোন কাজ করে ফেলতে পারেন এ দিনটিতে।

৬. পছন্দের উপন্যাস পড়ে শেষ করতে পারেন অথবা কিছু মুভিও দেখে ফেলতে পারেন। ভালো সময় কাটবে।

৭. পরিবার থেকে দূরে থাকলে কাউকে না জানিয়ে বাড়ি চলে যেতে পারেন। এতে পরিবারকে একটি সারপ্রাইজও দেওয়া হবে, আপনারও আনন্দঘন কিছু সময় কাটবে।

৮. ইবাদাত বন্দেগীতে মশগুল হতে পারেন।

৯. নিজের গ্রাম কিংবা শহর একা একা কিংবা আপনারই মত সিঙ্গেল বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে ঘুরে দেখতে পারেন।

১০. ডিজে পার্টিতে যেতে পারেন।

১১. একা একাই চুটিয়ে প্রচুর সেলফি তুলতে পারেন।

১২. দিবসটিকে ভুলে গিয়ে অন্যান্য দিনের মত নিজের কাজ করতে পারেন।

১৩. আগামী বছরের ভালোবাসা দিবস নিয়ে বিভিন্ন পরিকল্পনা সাজাতে পারেন। বলা তো যায় না, কেউ হয়ত অপেক্ষা করে আছেন আপনারই জন্য!