/ভিন্ন নিয়মে খেলবে বাংলাদেশ- দক্ষিণ আফ্রিকা

ভিন্ন নিয়মে খেলবে বাংলাদেশ- দক্ষিণ আফ্রিকা

বাংলাদেশ যখন চলতি মাসের শেষ দিকে দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট খেলবে, ভারত তখন নিজেদের মাটিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলবে ওয়ানডে সিরিজ। একই সময়ে খেলা হলেও বাংলাদেশ- দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ হবে নতুন নিয়মে এবং ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে ওয়ানডে সিরিজ হবে পুরাতন তথা বর্তমান নিয়মে।

নতুন নিয়মে আম্পায়ার্স ডিসিশনস রিভিউ সিসটেম, ব্যাটের আকার, রানআউটসহ বেশ কয়েকটি নিয়মে পরিবর্তন আনা হয়েছে।

ডিআরএস: ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস)’এ পরিবর্তন এসেছে। এখন থেকে আম্পায়ার্স কলের বিপরীতে রিভিউ ডেকে কোনও দল হেরে গেলে তাদের নির্ধারিত রিভিউটি নষ্ট হবে না। তারা আরেকবার রিভিউ নিতে পারবে। বর্তমান নিয়মানুযায়ী, টেস্টের প্রথম ৮০ ওভারে প্রতিটি দল দুটি করে রিভিউ নিতে পারে। ওডিআইতে ইনিংসে একটি করে। নতুন নিয়মে প্রতি ৮০ ওভারে নতুন দুটি রিভিউ পাওয়ার নিয়মটা বাতিল হয়ে পুরো ইনিংসেই শুধু দুটো রিভিউ থাকবে। এখন থেকে টি-টুয়েন্টিতেও রিভিউ পদ্ধতি চালু হবে।

ব্যাটের আকার: ব্যাট এবং বলের আকারে সমন্বয় করতে নির্দিষ্ট একটি আকার ঠিক করে দিয়েছে আইসিসি। এখন থেকে কোনও খেলোয়াড়ের ব্যাটের প্রস্থ ১০৮ মি.মি’র বেশি হতে পারবে না। ব্যাট পুরু হবে সর্বোচ্চ ৬৭ মি.মি। কানা পর্যন্ত পরিমাপ ৪০ মি.মি।

মাঠে খেলোয়াড়কে শাস্তি: এখন থেকে ফুটবলের রেফারির মতো সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন মাঠের দুই আম্পায়ার। কোনও খেলোয়াড়ের আচরণ আম্পায়ারের পছন্দ না হলে তাকে মাঠ থেকে বের করে দেয়া যাবে। আইসিসির সব সদস্য দেশ এই নিয়মের সঙ্গে একমত হয়েছে।

রানআউট: চলতি নিয়মে ব্যাটসম্যান ক্রিজ পার হয়েও পা ও ব্যাট দুটোই বাতাসে রাখলে, তখন স্টাম্প ভেঙে দিলে সেটা রানআউট। নতুন নিয়মে ব্যাটসম্যানের ব্যাট বা পা একবার ক্রিজ অতিক্রম করলেই আর তিনি রানআউট হবেন না।

আসন্ন বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে সিরিজ দিয়ে নতুন নিয়ম চালু হবে। ১ অক্টোবর থেকে নতুন নিয়ম চালু হওয়ার কথা, তবে বাংলাদেশ- দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে টেস্ট সিরিজ যেহেতু শুরু হবে ২৮ সেপ্টেম্বর তাই এই সিরিজ দিয়েই নতুন নিয়ম কার্যকর হচ্ছে।

তবে ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে ৫ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ এবং তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে এই নিয়ম কার্যকর হবে না। বর্তমান নিয়মেই হবে এই সিরিজ। পুরাতন নিয়মে এটাই শেষ সিরিজ।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ যখন ২৮ সেপ্টেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম টেস্ট খেলতে মাঠে নামবে, একই সময়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চতুর্থ ওয়ানডে খেলবে ভারত।

খবরটি সবার সাথে শেয়ার করুন !