সৌদি আরবে বাংলাদেশি কমিউনিটি স্কুলে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান

সৌদি আরবে অবস্থিত বাংলাদেশি কমিউনিটির বিভিন্ন স্কুলের উন্নয়নে ও চলমান আর্থিক সঙ্কট মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক প্রতিশ্রুত প্রবাসী কল্যাণ তহবিল হতে ১০ কোটি টাকা বিতরণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে গতকাল রিয়াদের বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কর্তৃপক্ষকে ৩ কোটি টাকার চেক হস্তান্তর করেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ।
এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার প্রবাসী বান্ধব সরকার। তাই প্রবাসীদের সন্তানদের পড়াশুনা নির্বিঘ্ন করার লক্ষে প্রধানমন্ত্রী ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড হতে অর্থ বরাদ্দ দিয়েছেন। তিনি এসব অর্থ সঠিকভাবে স্কুলের উন্নয়নে ব্যয় করার জন্য কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ প্রদান করেন। এছাড়া ছাত্রছাত্রীদের দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে পাঠদানের মাধ্যমে তাদের দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করার জন্য শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানান।
রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা করে বলেন, তার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ মহাকাশে স্যাটেলাইট প্রেরণ করেছে। বাংলাদেশ ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে বলে আশাবাদ প্রকাশ করেন রাষ্ট্রদূত।
সৌদি আরবে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশীদের সন্তানদের পড়াশুনার জন্য এসব স্কুল দীর্ঘদিন থেকে পরিচালিত হয়ে আসছে। সম্প্রতি এসব স্কুল বিভিন্ন কারণে অর্থসঙ্কটের মুখে বন্ধ হয়ে যাবার উপক্রম হয়। প্রধানমন্ত্রীর প্রদত্ত অর্থ স্কুলের বিভিন্ন কাজে ব্যবহারের মাধ্যমে স্কুলের চলমান সঙ্কট মোকাবেলা করা সম্ভব হবে বলে জানান স্কুলের পরিচালনা পর্ষদের সদস্যবৃন্দ ও শিক্ষকগণ। স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা ও অভিভাবকগণ প্রধানমন্ত্রীর এ অনুদানের জন্য বিশেষ ধন্যবাদ জানান ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
এর আগে, গত শুক্রবার সৌদি আরবের আল কাসিম প্রদেশের বুরাইদা বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের সহায়তায় রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের ৭৭ লক্ষ টাকার চেক হস্তান্তর করেন। এ সময় দূতাবাসের কর্মকর্তাবৃন্দ ও স্কুলের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষকবৃন্দ, পরিচালনা পরিষদের সদস্যগণ, অভিভাবক ও কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।