সৌদি যুবরাজদের কয়েদখানা খুলেছে

সৌদি আরবের রিয়াদে বন্দী থাকা যুবরাজদের কয়েদখানা হিসেবে পরিচিত পাঁচ তারকা হোটেল রিৎজ-কার্লটন খুলে দেওয়া হয়েছে। এই হোটেলে গত নভেম্বর থেকে দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়া বেশ কয়েকজন রাজপুত্র এবং শীর্ষ কর্মকর্তারা বন্দী ছিলেন।হোটেলটির কর্মীরা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হোটেলটি অতিথিদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে।

বিবিসি এক খবরে জানিয়েছে, গত নভেম্বরে দেশটিতে দুর্নীতি বিরোধী অভিযান চালু হওয়ার পর থেকে গ্রেপ্তার হওয়া প্রভাবশালী বন্দীদের রাখার জন্য রিৎজ-কার্লটনসহ বেশ কয়েকটি বিলাসবহুল হোটেল ব্যবহৃত হতো। এসব হোটেলে দেশটির ২০০ জনেরও বেশি গ্রেপ্তার হওয়া রাজপুত্র, মন্ত্রী এবং ব্যবসায়ীরা বন্দী ছিলেন।জানুয়ারি মাসের শেষ দিকে প্রসিকিউটর জেনারেলের কার্যালয় থেকে জানানো হয়, যুবরাজসহ গ্রেপ্তার হওয়া প্রভাবশালী ব্যক্তিরা মুক্তিপণের বিনিময়ে বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেয়েছেন। এ প্রক্রিয়ায় সরকার ইতিমধ্যেই ১০০ বিলিয়ন ডলারের বেশি অর্থ উদ্ধার করেছে।প্রসিকিউটর জেনারেলের কার্যালয় থেকে আরও জানানো হয়, রিৎজ-কার্লটন হোটেলে এখনো ৫৬ জন বন্দী আছেন। যদিও দেশটির কোন কোন রিপোর্টে বলা হয়েছে, রিৎজ-কার্লটন হোটেলের বাকি বন্দীদের কারাগার থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মেদ বিন সালমান দেশটির দুর্নীতি দমন কমিটির প্রধানের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই দেশটিতে দুর্নীতি দমন অভিযান শুরু হয়। এ সময় যুবরাজ আলওয়ালিদ বিন তালাল, সৌদি মিডিয়া মোগল ওয়ালিদ আল-ইব্রাহিম, সাবেক রয়্যাল কোর্টের প্রধান খালিদ আল টুআইজিরিসহ বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী আটক হন।