স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়ন কর্মসূচিগুলো নির্দিষ্ট মেয়াদের মধ্যে সম্পন্ন করার নির্দেশ

স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়ন কর্মসূচিগুলো সর্বোচ্চ স্বচ্ছতা, নিষ্ঠা ও দ্রুততার সাথে নির্দিষ্ট মেয়াদের মধ্যে সম্পন্ন করার নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।
তিনি বলেন, গত পাঁচ বছর সরকার কাজ করেছে বলে জনগণ রাজধানী থেকে গ্রাম পর্যন্ত আধুনিক স্বাস্থ্যসেবা পাচ্ছে। এই ধারাবাহিকতা আগামীতেও অব্যাহত রাখতে সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আরো নিষ্ঠার পরিচয় দিতে হবে। স্বাস্থ্যখাতের ব্যবস্থাপনায় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতাকে সর্বাধিক প্রাধান্য।
আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্যখাতের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় সভাপতিত্বকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এই নির্দেশ দেন।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের সময় স্বাস্থ্যখাতে যে সাফল্য এসেছে তাকে আরো ঊর্দ্ধে নিয়ে যেতে হবে। এ জন্যে আগামী দিনের কর্মসূচির সুষ্ঠু ও সফল বাস্তবায়ন নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই নিশ্চিত করতে হবে। একটি জনবান্ধব চিকিৎসা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হলে এই খাতের কোনো অংশে অনিয়ম ও গাফিলতি মেনে নেয়া যাবে না।
সভায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পসমূহের অগ্রগতি নিয়ে পর্যালোচনা হয়। বেশ কিছু প্রকল্পের কাজ শেষ পর্যায়ে এবং উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকার তথ্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী সন্তোষ প্রকাশ করেন। যেসব প্রকল্প ধীর গতিতে চলছে সেগুলোর কাজ আরো দ্রুততার সাথে এগিয়ে নিতে মন্ত্রী সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে আর্থ-সামাজিক খাতে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে ত্বরান্বিত করতে হলে সকল চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মীদেরকে নিজ নিজ দায়িত্ব পালনে আরো যতœবান হতে হবে। তৃণমূল মানুষের বিশেষ করে দরিদ্র মানুষের জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে সরকারের পদক্ষেপগুলোর সফল বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্টদেরকে তৎপর থাকতে হবে।
এসময় অন্যান্যের মাঝে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মোঃ সিরাজুল হক খান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদসহ মন্ত্রণালয়, অধিদপ্তর এবং বাস্তবায়নাধীন বিভিন্ন প্রকল্পের ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।