এদেশের মতো সাংবাদিক সহায়তা উপমহাদেশে বিরল : তথ্যমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, করোনাকালে বাংলাদেশে যেভাবে সাংবাদিকদের সহায়তা করা হচ্ছে, ভারত-পাকিস্তানসহ উপমহাদেশের কোথাও এমন উদাহরণ নেই।

বুধবার (২৯ জুলাই) যশোর সার্কিট হাউজ সভাকক্ষে করোনাকালীন পরিস্থিতিতে খুলনা বিভাগের ৯ জেলার সাংবাদিকদের মধ্যে আর্থিক সহায়তার চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের আয়োজনে যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের (জেইউজে) সহযোগিতায় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আর্থিক সহায়তা দিয়ে সাংবাদিকদের পাশে দাঁড়ান। ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, শ্রীলঙ্কা—কোথাও সাংবাদিকদের সহায়তা দেওয়ার নজির নেই। সে ক্ষেত্রে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী একটি অনন্য উদাহরণ সৃষ্টি করেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, গত ৩০ জুন বাজেট পাসের দিন আমার পিএস (একান্ত সচিব) ফোনে জানালো— সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাষ্টের যে টাকা দিতে বলেছিলেন সে টাকা অর্থমন্ত্রনালয় ছাড় করছে না। আপনাকে অর্থমন্ত্রীর সাথে কথা বলতে হবে। আমি পার্লামেন্টেই অর্থমন্ত্রীর কাছে ছুটে যাই এবং টাকাটা ছাড় করে দেওয়ার ব্যবস্থা করি।

প্রাথমিক ভাবে এই সহায়তা দেওয়া হচ্ছে এবং পর্যায়ক্রমে আবারও দেওয়া হবে উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, সরকার সকলের। যারা সব সময় সরকারের সমালোচনা করে সেই সাংবাদিকদেরও সহায়তা দেওয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মানুষের পাশে দাঁড়াতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। অনেক নেতাকর্মী, এমপি, মন্ত্রী মারা গেছেন। আর ঘরে বসে বিএনপির নেতারা টেলিভিশনে উঁকি দিয়ে মুখ দেখাচ্ছে। তারা মানুষের পাশে নেই।

আ. লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, অনেক ধনী দেশে করোনাকে অবজ্ঞা করা হয়েছিল এবং সেই দেশগুলোতে এখনো মৃত্যুর মিছিল চলছে। পৃথিবীর কোন জায়গা এই ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকেনি। আমাদের নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মানুষকে করোনা থেকে মুক্ত রাখতে যতটুকু সম্ভব সেটি করার চেষ্টা করে আসছেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন যশোর-৬ আসনের সাংসদ শাহীন চাকলাদার, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোল্লা জালাল, মহাসচিব শাবান মাহমুদ, জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান, পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম। সভাপ্রধান ছিলেন জেইউজে সভাপতি সাজেদ রহমান এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান।

অনুষ্ঠান শেষে হাছান মাহমুদ, শাহীন চাকলাদারসহ অতিথিরা মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের জন্মস্থান কেশবপুর উপজেলার সাগরদাঁড়িতে যান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap