ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল এখন ঘরে ঘরে

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে তথ্য ও প্রযুক্তির ব্যবহারের গুরুত্ব অনুধাবন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য পুত্র ও তথ্য-প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। তিনি বিস্তৃত পরিসরে প্রযুক্তির বহুল ব্যবহারের সম্ভাব্যতা নিয়ে একটি রূপরেখা প্রদান করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সার্বিক নির্দেশনায় আইসিটি ডিভিশন সেই রূপরেখাকে বাস্তব রূপদানে কাজ করেছে। এরই ফলশ্রুতিতে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ সম্ভব হয়েছে এবং করোনাকালে ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে গেছে।

রবিবার (১৩ ডিসেম্বর) বিকেলে নাটোরের সিংড়া পৌরসভার ১১টি পয়েন্টে ২১টি সিসিটিভি ক্যামেরা ও ১০টি পয়েন্টে ১২টি ফ্রি ওয়াইফাই জোন উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, করোনা মহামারিকালে মানুষের জীবনযাপন সহজ করে দিয়েছে প্রযুক্তি। এই মহামারির মধ্যেও ইন্টারনেটের মাধ্যমে ই-কমার্স ব্যবহার করে ঘরে বসে পণ্য কেনা-বেচা, অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম, ভার্চুয়াল বিচারিক কার্যক্রম, টেলিমেডিসিন সেবাসহ বিভিন্ন সেবা মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়েছে সরকার।

পলক বলেন, বাংলাদেশ ডিজিটাল হওয়ায় সর্বক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠা হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো আগের চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী ভূমিকা পালন করছে। ফলে যে কোনো অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের উৎস ও মোটিভ অনুসন্ধান ও অপরাধীদের অবস্থান শনাক্তকরণ সম্ভব হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap