বনানীতে সীমিত পরিসরে আইনমন্ত্রীর মায়ের জানাজা

রাজধানীর বনানীতে পারিবারিক ও সীমিত পরিসরে আইনমন্ত্রীর মায়ের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। শনিবার (১৮ এপ্রিল) বনানীর ১১ নম্বর রোড সংলগ্ন পানি উন্নয়ন বোর্ডের জামে মসজিদে বাদ যোহর জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর তাকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে।

আইন মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা ড. মো. রেজাউল করিম এ তথ্য জানিয়েছেন।

আইনমন্ত্রীর মা ও প্রয়াত অ্যাডভোকেট সিরাজুল হকের সহধর্মিণী মুক্তিযোদ্ধা জাহানারা হক শুক্রবার (১৭ এপ্রিল) দিনগত রাতে রাজধানীর একটি হাসপাতালে  ইন্তেকাল করেন।

তিনি গতবছরের ২৭ অক্টোবর থেকে ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন যাবত হৃদরোগসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। তার বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর ৫ মাস ২১ দিন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়াও মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা আইনমন্ত্রীর মায়ের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

তিন বছরের ব্যবধানে মন্ত্রী তার ভাই, বোনের পর মাকে হারালেন। ২০১৭ সালের ১০ মার্চ যুক্তরাষ্ট্রের ডালাসের একটি হাসপাতালে আইনমন্ত্রীর একমাত্র ছোট ভাই আরিফুল হক রনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তিনি স্ত্রী, দুই পুত্র ও এক কন্যা রেখে গেছেন।  মন্ত্রীর একমাত্র বড় বোন সায়মা ইসলাম ২০১৮ সালের ১৫ জুলাই ঢাকায় মারা যান। তিনি স্বামী ও এক ছেলে রেখে গেছেন।

বিয়ের কিছুদিন পর ১৯৯১ সালের ২ জানুয়ারি সড়ক দুর্ঘটনায় স্ত্রী নূর আমাতুল্লাহ্ রিনা হককে হারান আইনমন্ত্রী। এরপর তিনি আর বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হননি। তার কোন সন্তান নেই।

২০০২ সালের ২৮ অক্টোবর মারা যান বঙ্গবন্ধুর বিশ্বস্ত ও ঘনিষ্ট সহচর আনিসুল হকের বাবা অ্যাডভোকেট সিরাজুল হক। তিনি আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার, জাতীয় সংসদ সদস্য, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বাংলাদেশ সংবিধানের অন্যতম প্রণেতা, প্রখ্যাত আইনজীবী ও বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার চিফ প্রসিকিউটর ছিলেন।

আনিসুল হক ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা-আখাউড়া) আসনের সংসদ সদস্য। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ও ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ওই আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap