বাংলাদেশ সরকারের প্রথম অর্থ সচিব আসাদুজ্জামানের মৃ’ত্যুতে প্রধানমন্ত্রী গভীর শোকাহত

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর-গোপালপুর আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এবং মুজিবনগর সরকারের অর্থ সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার আসাদুজ্জামানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (২৫ এপ্রিল) এক শোক বিবৃতিতে তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং বিভিন্ন গণতান্ত্রিক সংগ্রামে তার ভূমিকা জাতি শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে। বর্ষীয়ান এ নেতার মৃ’ত্যুতে জাতি একজন ত্যাগী আওয়ামী লীগ নেতাকে হারাল।

শোক বিবৃতিতে প্রধানমন্ত্রী মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং তার শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

এদেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার আসাদুজ্জামানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি মিয়া, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি ও তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান।

উল্লেখ্য, শনিবার (২৫ এপ্রিল) বিকাল ৪টা ১০ মিনিটে রাজধানীর গুলশানের বাড়িতে মার যান খন্দকার আসাদুজ্জামান (৮৫)। তিনি দীর্ঘদিন হৃদরোগে আক্রান্ত ছিলেন।

১৯৩৫ সালের ২২ অক্টোবর টাঙ্গাইলে জন্মগ্রণ করেন খন্দকার আসাদুজ্জামান। আওয়ামী লীগের মনোনয়নে ১৯৯৬ সালের তিনি প্রথমবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এরপর ২০০৮ এবং ২০১৪ সালের নির্বাচিত হয়ে সংসদে টাঙ্গাইল-২ আসনের মানুষের প্রতিনিধিত্ব করেন। জাতীয় সংসদের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমটিতেও তিনি দায়িত্ব পালন করেছেন।আসাদুজ্জামানের মেয়ে অপরাজিতা হক বর্তমান একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ঢাকা থেকে আসাদুজ্জামানের মরদেহ গোপালপুরের হেমনগর ইউনিয়নের নারচী গ্রামে তার বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে জানাজার পর পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap