বাপ- ছেলের জীবনবাজিতে রক্ষা পেয়েছিলেন শেখ হাসিনা

২১ আগস্ট। ২০০৪ সালের এই দিন বিকেলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশ চলাকালে বিএনপি- জামাতের পৃষ্টপোষকতায় গ্রেনেড হামলা চালায় জঙ্গিরা। এতে দলটির ২৪ জন নেতাকর্মী নিহত হন। আহত হন পাঁচ শতাধিক। সেদিন প্রাণে বেঁচে যান তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

ঘাতকদের ছোঁড়া গ্রেনেড বিস্ফোরণে অনেক নেতাই প্রাণ রক্ষায় দিক বিদিক হলেও সেদিন জানবাজি রেখে শেখ হাসিনাকে জড়িয়ে মানববর্ম তৈরি করে তাকে রক্ষা করেন ঢাকার তৎকালীন মেয়র মোহাম্মদ হানিফ।

এর ফলে প্রাণে রক্ষা পান শেখ হাসিনা। তবে মস্তিস্কসহ দেহের বিভিন্ন অংশে গ্রেনেডের অসংখ্য স্প্লিন্টারের আঘাতে গুরুতর আহত হন মেয়র হানিফ। দীর্ঘদিনের চিকিৎসার পরেও কোনো ফল হয়নি। শেষ পর্যন্ত দুঃসহ যন্ত্রণা নিয়েই মারা যান তিনি।

সেদিন শেখ হাসিনাকে রক্ষা করতে ঝাঁপিয়ে পড়েন মেয়রপুত্র (বর্তমান মেয়র) সাঈদ খোকনও। রক্তে রঞ্জিত হয় তার শরীর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap