বিএসএফকে অবশ্যই সতর্ক হতে হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীকে (বিএসএফ) অবশ্যই সতর্ক হতে হবে ও বাংলাদেশ সীমান্তে নন-লেথাল (প্রাণঘাতী অস্ত্র নয়) অস্ত্র ব্যবহার করতে হবে।

ভারতীয় গণমাধ্যম দ্য হিন্দু পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বরাত দিয়ে এই সংবাদ প্রকাশ করেছে। আসামের করিমগঞ্জ রাজ্যে তিন বাংলাদেশি নাগরিককে হত্যার পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকায় দ্য হিন্দু’র সঙ্গে  একে আব্দুল মোমেন কথা বলেছেন বলে সংবাদে উল্লেখ করা হয়।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ সীমান্তের যে জায়গাগুলোতে প্রাণহানী বা বাংলাদেশি নাগরিক গুলিবিদ্ধ হয়, সেগুলো চিহ্নিত করা হয়েছে। হতাহত কমিয়ে আনতে ওই চিহ্নিত জায়গাগুলোতে বিজিবির অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েনের পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

দ্বিপাক্ষিক সমঝোতার প্রসঙ্গ আব্দুল মোমেন বলেন, আরও সতর্ক হয়ে বিএসএফ সদস্যদের  সীমান্ত এলাকায় দায়িত্ব পালন করা উচিত। আমাদের দেশের নাগরিক আইন লঙ্ঘন করলে তাদের গ্রেফতার করতে পারে। কিন্তু হত্যা কখনোই সমর্থনযোগ্য না।

এদিকে ইদুল আজহাকে কেন্দ্র করে সীমান্তে গরু চোরাকারবারি রোধে কঠোর অবস্থান নিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে চাহিদা ‍অনুযায়ী পর্যাপ্ত গরু আছে। অন্য কোথাও থেকে গরু আমদানি করার প্রয়োজন নেই। যদিও করিমগঞ্জের ঘটনাটির তদন্ত শেষ হয়নি, সীমান্তরক্ষী ও ভারতীয় নাগরিকদের কাছে আমাদের প্রত্যাশা থাকবে তারা দ্বিপাক্ষিক সমঝোতার বিষয়গুলো ভঙ্গ করবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap