মন্ত্রী হবেন না মাশরাফি!

ক্রিকেট থেকে রাজনীতিতে নাম লেখানোর ক্ষেত্রে মাশরাফি বিন মুর্তজাই প্রথম দৃষ্টান্ত নন। তবে খেলোয়াড়ি জীবনের ইতি টানার আগেই রাজনীতিতে আসার ক্ষেত্রে মাশরাফি বিরল উদাহরণ। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-২ আসন থেকে নির্বাচন করে বিপুল ব্যবধানে জয়লাভ করেন মাশরাফি। বর্তমানে রাজনীতি নিয়েই কাটছে তার ব্যস্ত সময়। তবে সংসদ সদস্য হলেও মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত হওয়ার কোনো লক্ষ্য নেই মাশরাফির; বরং সংসদ সদস্য হিসেবেই নিজ জেলা নড়াইলের সেবা করে যেতে চান তিনি।

সম্প্রতি মাশরাফির ব্রেসলেটের নিলাম উপলক্ষে অকশন ফর অ্যাকশনের ফেসবুক লাইভে এক প্রশ্নের জবাবে মাশরাফি জানান, ভবিষ্যতে মন্ত্রী হওয়ার কোনো ইচ্ছা আপাতত নেই তার। ভবিষ্যতে মন্ত্রী হওয়ার সুযোগ পেলে ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ছাড়া অন্য কোনো মন্ত্রণালয়ে কাজ করতে চান কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘কষ্ট করতে পছন্দ করি, কিন্তু কোনো আশা নিয়ে থাকি না।’

এক্ষেত্রে মাশরাফি উদাহরণ দিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের বৃহত্তর স্বার্থেই তার নজর, এমন ইঙ্গিত করে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক বলেন, ‘বাংলাদেশ দলে যখন খেলেছি তখন চেয়েছি দল জিতুক, এক্ষেত্রে কষ্টের ঊর্ধ্বে ছিল সবকিছু। ব্যক্তিগত লক্ষ্যের কথা বলেন যদি, আমি কখনোই এমন (মন্ত্রী হওয়ার) লক্ষ্য দেখি না। যে জিনিস আমার আয়ত্তে নেই বা প্রয়োজন নেই আমি সেটা চিন্তা করি না। ঐ ধরনের চিন্তাভাবনা আমার কাছে আসলেই নেই।’

তবে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ব্যানারে রাজনীতিতে আসা মাশরাফি নিজ জেলার সেবা করে যেতে চান বাকি দিনগুলোতে। তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে দায়িত্ব দিয়েছেন, নড়াইল-২ আসনের দায়িত্ব, আমি আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা করব এই আসনের সবাই যাতে ভালো থাকেন। পাশাপাশি পুরো নড়াইলে যারা আছেন সবার ভালো করার সুযোগ হলে অবশ্যই করব। আমি আসলে এত দূরে তাকাই না। যেটা আছে সেটা মন দিয়ে করছি, চেষ্টা করছি। এত বড় কিছু ভাবার প্রয়োজন আছে বলে মনে করছি না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap