সাংসদদের করোনা টেস্ট শুরু, শনাক্ত ১৫

জাতীয় সংসদের ৯৪ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। শুধু কর্মকর্তা-কর্মচারীই নয় ইতোমধ্যে ১৫ জন সংসদ সদস্যও আক্রান্ত হয়েছেন।

এদিকে, সংসদের চলতি বাজেট অধিবেশনের আগামী চারটি বৈঠকে যেসব সংসদ সদস্যরা অংশ নেবেন তাদের করোনা টেস্ট শুরু করা হয়েছে।

সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা যায়, সংসদ সচিবালয়ের উদ্যোগে প্রতিদিনই কর্মকর্তা-কর্মচারীদের করোনা টেস্ট করা হচ্ছে। ১৮ জনের টেস্টের রিপোর্টে পাওয়া গেছে। এতে এখন পর্যন্ত সর্বমোট ৯৪ কর্মকর্তা-কর্মচারীর কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সংসদ ভবনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও রয়েছেন।

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণের মধ্যেই আগামী ২০২০-২১ অর্থ বছরের বাজেট অধিবেশন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রতিকূল পরিস্থিতির কারণে অধিবেশন সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে। গত ১০ জুন শুরু হয়ে চার কার্যদিসব সংসদে বৈঠক হয়েছে। ২৩ জুন পর্যন্ত বৈঠক মুলতবি রাখা হয়েছে। এরপর আর মাত্র চার কার্যদিসব অর্থাৎ ২৩, ২৪, ২৯, ৩০ জুন সংসদে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ৩০ জুন ২০২০-২১ অর্থ বছরের বাজেট পাস হবে।

এই বৈঠকে সংসদ সদস্য কারা কারা অংশ নেবেন তার একটি তালিকাও করা হয়েছে। এই তালিকায় যারা আছেন তাদের করোনা টেস্ট করা হচ্ছে সংসদ সচিবালয়ের উদ্যোগে।

শনিবার (২০ জুন) থেকে এই কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এদিন ২০ জন এমপির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এছাড়া সংসদ সচিবালয় ও ভবনের ৩৩ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নমুনাও নেওয়া হয়েছে। রবিবারও এমপিদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

এ বিষয়ে জানেতে চাওয়া হলে জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের ডেন্টাল সার্জন ডা. তামিম বলেন, আমরা যাদের টেস্ট করেছি এখন পর্যন্ত (১৮ জুন) ৯৪ জন শনাক্ত হয়েছেন। শনিবার থেকে এমপিদেরও করোনা টেস্ট করা শুরু হয়েছে। যারা পরবর্তী বৈঠকগুলোতে অংশ নেবেন তাদের টেস্ট করা হচ্ছে।

এদিকে যারা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন তাদের মধ্যে তিন মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রীসহ ১৫ সংসদ সদস্য রয়েছেন। এদের মধ্যে একজন সাবেক চিফ হুইপ রয়েছেন।

আক্রান্তরা হলেন- বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।

এদের মধ্যে, শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ গত ১৩ জুন মারা যান। সাবেক মন্ত্রী এবং সিরাজগঞ্জ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য এবং আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম করোনা আক্রান্তের পর ব্রেন স্টোক করে মারা যান।

এছাড়াও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী খন্দোকার মোশাররফ হোসেন, নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ক্রিকেটার মাশরফি বিন মর্তুজা, সাবেক চিফ হুইপ ও মৌলভীবাজার-৪ আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ, সিলেট থেকে নির্বাচিত গণফোরামের সংসদ সদস্য বোকাব্বির খান, সাবেক হুইপ ও নওগাঁ থেকে নির্বাচিত আওয়ামী লীগের সদস্য শহীদুজ্জামান সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap