স্বাভাবিক হচ্ছে করোনামুক্ত জেলা-উপজেলার কার্যক্রম

যেসব জেলা উপজেলা এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস সংক্রমণমুক্ত রয়েছে, সেসব এলাকায় বহিরাগতদের কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় যুক্তিসঙ্গতভাবে স্বাভাবিক কার্যক্রম অব্যাহত রাখা যাবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

বুধবার (৬ মে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ স্বাক্ষরিত এক সরকারি ঘোষণায় এই তথ্য জানানো হয়।

ঘোষণায় বলা হয়, ইতোপূর্বে সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন, ২০১৮ (২০১৮ সালের ৬১ নং আইন) এর ১১ (১) ধারার ক্ষমতাবলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের ১৬ এপ্রিল তারিখের স্বা:অধি:/ করোনা/ ২০২০-৩৪ নং স্বারকে ঘোষণায় উল্লিখিত নির্দেশনাসমূহ নিপুণভাবে পরিবর্তিত হবে।

নির্দেশনার মধ্যে আছে- করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রশমনে জনগণকে অবশ্যই ঘরে অবস্থান করতে হবে। সন্ধ্যা ৬ টার স্থলে রাত ৮ টা হতে সকাল ৬টা পর্যন্ত অতীব জরুরি প্রয়োজন (প্রয়োজনীয় ক্রয় বিক্রয়, খাদ্যদ্রব্য, ওষুধ ক্রয়, চিকিৎসাসেবা, মৃতদেহ সৎকার ইত্যাদি) ব্যতীত কোনোভাবেই বাড়ির বাইরে আসা যাবে না। এক জেলা হতে অন্য জেলা এবং এক উপজেলা হতে অন্য উপজেলায় জনসাধারণের চলাচল কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত থাকবে। জেলা প্রশাসন আইন শৃঙ্খলা বাহিনী এ নিয়ন্ত্রণ সতর্কভাবে বাস্তবায়ন করবে।

চলাচল নিষেধাজ্ঞাকালীন জনসাধারণ এবং সব কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ থেকে জারিকৃত নির্দেশমালা কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক প্রস্তুতকৃত কারিগরি নির্দেশনাগুলো সর্বস্তরে বাস্তবায়নের পরামর্শও দেওয়া হয়েছিল ওই নির্দেশনায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap